বিশ্বকাপে মুস্তাফিজের বাজে বোলিং নিয়ে যা বললেন শাহরিয়ার নাফিস

দক্ষিণ আফ্রিকা এবং নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে বিশ্বকাপের প্রথম দুই ম্যাচে পুরনো মুস্তাফিজের খোঁজ মিলেছিল। কিন্তু ইংল্যান্ডের বিপক্ষে একেবারেই ছন্দ হারা ছিলেন বাংলাদেশি বাঁহাতি পেসার মুস্তাফিজুর রহমান।

প্রোটিয়াদের বিপক্ষে দশ ওভারের কোটা পূর্ণ করে ৬৭ রানে তিন উইকেট তুলে নিয়েছিলেন মুস্তাফিজ। গতির পাশাপাশি বোলিংয়ে বৈচিত্র্য এনে সফল হয়েছিলেন তিনি। কিউইদের বিপক্ষে বোলিং কোটা পূর্ণ করতে পারেননি তিনি। ৬.৬৯ ইকোনমিতে রান দিয়ে ছিলেন উইকেট শূন্য।

ইংলিশ ব্যাটসম্যানরা পাত্তাই দেননি মুস্তাফিজকে। তাঁর বিপক্ষে রান তুলে নিয়েছিলেন ৮.৩৩ ইকোনমিতে। একটি উইকেটের দেখা পেয়েছিলেন মুস্তাফিজ। পারফর্মেন্সের উত্থান-পতনের মধ্য দিয়ে সময় পার করছেন বাঁহাতি এই পেসার।

মূলত ইনজুরির কারণেই মুস্তাফিজের এমন মিশ্র পারফর্মেন্স, মনে করছেন বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক শাহরিয়ার নাফিস। ধারাবাহিক পারফর্মেন্স ফিরে আসবেন মুস্তাফিজ, বিশ্বাস নাফিসের।

‘প্রস্তুতি ম্যাচের তুলনায় প্রথম দুইটি ম্যাচে মনে হয়েছে মুস্তাফিজ সেরা ফর্মে ফিরছে। কিন্তু শেষ ম্যাচে আমরা মিশ্র পারফর্মেন্স দেখেছি। মুস্তাফিজ ইনজুরি থেকে ফেরার পর থেকে ওর পারফর্মেন্স কিছুটা মিশ্র। তবে ও ভালো দিকে যাচ্ছে এবং উন্নতি করছে।’

ইনজুরি প্রতিনিয়ত সঙ্গী হয়ে আছে মুস্তাফিজের। ক্যারিয়ারে বেশ কয়েকবার ইনজুরিতে পড়েছেন তিনি। ২০১৬ সালে ইংল্যান্ডে সাসেক্সের হয়ে ন্যাটওয়েস্ট টি-টুয়েন্টি ব্লাস্টে খেলতে গিয়ে কাঁধের ইনজুরিতে পড়েছিলেন এই পেসার। সেখানেই শল্যবিদের ছুরি-কাঁচির নিচে যেতে হয়েছে তাঁকে।

২০১৭ সালে ফুটবল অনুশীলনের সময় পায়ের গোড়ালিতে চোট পেয়েছিলেন মুস্তাফিজ, যে কারণে সেই বছরের বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগে (বিপিএল) প্রথম দিকে অংশ নিতে পারেননি তিনি। এরপর আফগানিস্তানের বিপক্ষে টি-টুয়েন্টি সিরিজেও অংশ নিতে পারেননি।

যে সিরিজে ৩-০ ব্যবধানে হেরেছিল টাইগাররা। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে টেস্ট সিরিজে ছিলেন না এই পেস তারকা। এরপর ডিপিএলের গত আসরে শাইনপুকুরের হয়ে খেলা মুস্তাফিজ অনুশীলনের সময় আবার পায়ের ইনজুরিতে পড়েন।

মাত্র দুইটি ম্যাচ খেলার সুযোগ পেয়েছিলেন তিনি। দুই সপ্তাহ বিশ্রামের পর নিউজিল্যান্ড সফর দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে আবার ফিরেছেন তিনি।কিন্তু চেনা মুস্তাফিজকে খুঁজে পাওয়া গেল না সেই সিরিজে, যদিও ওয়ানডে সিরিজের শেষ ম্যাচে কিছুটা জ্বলে উঠেছিলেন তিনি।

এরপর আয়ারল্যান্ডে ত্রিদেশীয় সিরিজেও ফর্মের উত্থান-পতনের মধ্য দিয়ে সময় কাটিয়েছেন এই পেসার। বিশ্বকাপেও একই ধারার মধ্য দিয়ে যাচ্ছেন দেশের এই প্রতিভাবান ক্রিকেটার।