একটি কারণেই মাশরাফির অবসরের পরে সাকিবকে দেওয়া হচ্ছে না অধিনায়কত্ব

ব্যাট এবং বল হাতে এই বিশ্বকাপে একের পর এক তা’ন্ডব দেখিয়েছেন সাকিব। তাইতো মাশরাফির অবসরের পরে সাকিবের অধিনায়ক হওয়ার সম্ভবনা ছিলো সবচেয়ে বেশি।

তবে ওয়ানডেতে সাকিবকে অধিনায়ক হিসেবে ভাবা হচ্ছে না। তামিম ইকবালের হাতে তুলে দেয়া হতে পারে ওয়ানডের দায়িত্ব।অধিনায়কত্ব পালনের সাম’র্থ্যে তামিমের চেয়ে সাকিব অনেক এগিয়ে, এটা পরীক্ষিত।

দলের ক্রিকেটারদের কাছ থেকে সেরাটা বের করে নেয়া বা মাঠে কৌশল প্রয়োগের দিক থেকে অধিনায়ক সাকিব সব সময়ই এগিয়ে তামিমের চেয়ে।

তবু কেন সাকিবকে এড়িয়ে তামিমকে ওয়ানডে অধিনায়ক করার কথা ভাবছে বিসিবি, এমন প্রশ্ন উঠে যাওয়া অবান্তর নয়। এখানে বিসিবির উচ্চ মহলের ক’র্তাদের ভাবনাই সবচেয়ে বড় ভূমিকা রাখছে।

একজনের হাতে তিন ফরম্যাটের দায়িত্ব দিতে চান না তাঁরা। মূল ভাবনা এটাই। যে কারণেই তামিমকে ওয়ানডের অধিনায়ক করার ব্যাপারে ভাবতে শুরু করেছে বিসিবি।

সাকিব বর্তমানে টেস্ট এবং টি-টোয়েন্টিতে নেতৃত্বে দিচ্ছেন। বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডারের কাঁধে এই দুই ফরম্যাটের দায়িত্বই রাখতে চায় দেশের ক্রিকে’টের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থাটি।

আর সেই হিসেবেই তামিমের অধিনায়ক হওয়ার সম্ভবনাই যে সবচেয়ে বেশি।