এবার মোস্তাফিজুর রহমানকে নিয়ে বিস্ফোরক মন্তব্য করলেন – রিকি পন্টিং

আবারো হেরে গেল মুস্তাফিজুর রহমানের দল দিল্লি ক্যাপিটালস। গতকাল চেন্নাই সুপার কিংসের বিপক্ষে লজ্জাজনকভাবে হেরেছে দিল্লি ক্যাপিটালস। টসে জিতে প্রথমে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন দলের অধিনায়ক রিশাব পান্ত।

কিন্তু অধিনায়কের সিদ্ধান্তের মূল্য দিতে পারেনি কোন বোলার। একমাত্র খলিল আহমেদ বাদে বেধড়ক পিটুনি খেয়েছেন বাকি সব বোলাররা। যদিও এই দিন একাদশে ছিলেন না মুস্তাফিজুর রহমান।

টসে হেরে প্রথমে ব্যাট করতে নেমে ডেভন কনওয়ের ৪৯ বলে পাঁচ ছক্কা ও সাত চারে ৮৭ রানের ইনিংসে ভর করে ৬ উইকেটে ২০৮ রান তোলে। ঋতুরাজ গাইকোয়াড ৩৩ বলে ৪১, শিভাম দুবে ১৯ বলে ৩২ ও এমএস ধোনি ৮ বলে ২১ রান করেন।

দিল্লির বোলার শার্দুল ঠাকুর ৩ ওভারে ৩৮, খলিল আহমেদ ৪ ওভারে ২৮ রানে ২ উইকেট ও এনরিক নরকিয়া ৪ ওভারে ৪২ রান দিয়ে নেন ৩ উইকেট। গুরুত্বপূর্ণ তিন উইকেট পেলেও ফিজের জায়গায় খেলা নরকিয়া ছিলেন খরুচে।

দশের ওপর রান দিয়েছেন ওভার প্রতি। এছাড়া কুলদীপ যাদব ৩ ওভারে ৪৩ রান খান। মিশেল মার্শ ৩ ওভারে ৩৪ রান দিয়ে নেন এক উইকেট। বড় রান তাড়া করতে নেমে ১৭.৪ ওভারে ১১৭ রানে অলআউট হয় দিল্লি।

এদিকে রিকি পন্টিং বলেন নরকিয়া জায়গায় মোস্তাফিজুর রহমান থাকলে। চেন্নাই সুপার কিংসের ২০৮ রান করা সম্ভব হতো না। তাই আমরা সিদ্ধান্ত নিব পরবর্তীতে মোস্তাফিজুর রহমানকে খেলানোর জন্য।

ডেভিড ওয়ার্নার ১৯, মিশেল মার্শ ২৫, ঋষভ পান্ত ২১ রান করে ফিরে যান। তারা সেট হয়ে আউট হওয়ায় লজ্জার হার নিয়ে মাঠ ছাড়ে দিল্লি। চেন্নাইয়ের হয়ে মঈন আলী ৪ ওভারে ১৩ রানে নেন ৩ উইকেট। এছাড়া মুকেশ চৌধুরী, ডোয়াইন ব্রাভো ও সিমারজিৎ সিং দুটি করে উইকেট নেন।