মুস্তাফিজবিহীন একাদশে মুম্বাইর কাছে ম্যাচ হার প্লে অফের আগেই বিদায় দিল্লীর দায় যাকে দিলেন পান্ত

মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের কাছে হেরে প্রথম রাউন্ড থেকেই বিদায় নিল মুস্তাফিজুর রহমানের দল দিল্লী ক্যাপিটালস। প্রথম রাউন্ডে নিজেদের শেষ ম্যাচে দিল্লী ক্যাপিটালস মুম্বাইর কাছে হেরেছে ৫ উইকেটের ব্যবধানে। দিল্লীর হারের পর প্লে অফ নিশ্চিত হয়েছে রয়্যাল চেলেঞ্জার্স বেঙ্গালোরের।

বাঁচা-মরার লড়াইয়ে এদিন প্রথমে ব্যাটিং করতে নামা দিল্লী ক্যাপিটালসের হয়ে ইনিংস উদ্বোধন করতে নামেন পৃথ্বী শ এবং ডেভিড ওয়ার্নার। তবে ওয়ার্নার ও তিন নম্বরে মার্শ রানের দেখা পাননি। ওপেনার পৃথ্বীর ব্যাট থেকে আসে ২৩ বলে ধীরগতির ২৪ রান।

রিশাব পান্তের ৩৩ বলে ৩৯ রান এবং রভম্যান পাওয়েলের ব্যাট থেকে আসে ৩৪ বলে ৪৩ রান। শেষের দিকে অক্ষর প্যাটেলের ১০ বলে অপরাজিত ১৯ রানে ভর করে নির্ধারিত ২০ ওভারে ৭ উইকেট হারিয়ে ১৫৯ রান করে দিল্লী।

জয়ের লক্ষ্যে খেলতে নামা মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের হয়ে ইশান কিষাণ খেলেন ৩৫ বলে ৪৮ রানের ইনিংস। এছাড়া ব্রেভিসের ৩৩ বলে ৩৭ রানের সাথে শেষের দিকে ম্যাচ বের করার চেষ্টা করেন তিলক বর্মা ও টিম ডেভিড।

১১ বলে ৩৪ রানের ঝড়ো ইনিংস খেলে টিম ডেভিড সাজঘরে ফিরে গেলে শেষ পর্যন্ত তিলক বর্মা ২১ এবং ৬ বলে ১৩ রানের ক্যামিও ইনিংস খেলে রনদিপ সিং ৫ উইকেটে ম্যাচ জেতান মুম্বাইকে।

এদিকে মুম্বাইর কাছে হেরে প্লে অফ থেকে ছিটকে যাওয়া দিল্লী ক্যাপিটালসের অধিনায়ক রিশাব পান্ত বলেন, ‘’বেশিরভাগ ম্যাচেই আমরা ভালো অবস্থানে থেকেছিলাম। মাঝেমধ্যে আমরা যে ম্যাচে ভালো অবস্থানে ছিলাম সেখান থেকেও ম্যাচ ফসকে গেছে।

পুরো আসরেই এমন হয়েছে। আমি ধারনা করছিলাম এই ম্যাচ জেতার জন্য এই রান যথেষ্ট ছিল না। আমরা আরও ভালো পরিকল্পনা করতে পারতাম। ভুল থেকে শিকে পরের মৌসুমে আরও শক্তিশালী হয়ে ফিরতে হবে।‘’

‘’পুরো টুর্নামেন্টে আমরা ভালো বোলিং করেছি। কিন্তু শেষের দিকে শিশির আমাদের ভালো বোলিং করতে দেয়নি। এটা কঠিন হলেও আমাদের তা মেনে নিতেই হবে। আমি ভেবেছিলাম সেখানে কিছু ছিল (টিম ডেভিডের পেছনে)। সার্কেলের ভেতরে থাকা কেউ কিছু বলেনি তাই আমিও যাইনি। আমরা আলোচনা করছিলাম যে আমরা বোলারদের বলব এটা সহজ রাখতে। আমাদের জন্য যারা কাজ করেছেন তারা বিশ্বাস রাখুন।‘’