বঙ্গবন্ধু টি২০ কাপ থেকে বিশ্বমানের তারকা ক্রিকেটার খুঁজে পেল বিসিবি

বঙ্গবন্ধু টুর্নামেন্ট আয়োজনের উদ্দেশ্য ছিল মুলত যেহেতু বাংলাদেশের আপাতত কোন সিরিজ নেই, আবার বাতিল হয়েছে সিরিজ। তার উপর খেলোয়াড়েরা অনেকদিন ধরে খেলার বাইরে, তাই এই টুর্নামেন্ট আয়োজনের সিদ্ধান্ত নেয় বিসিবি।

যদিও এর আগে প্রেসিডেন্ট কাপ সফল ভাবে আয়োজন করে বিসিবি, পরে তারা সিদ্ধান্ত নিয়েছিল আরও বড় পরিসরে টুর্নামেন্ট আয়োজনের। তাই তো প্রেসিডেন্ট কাপ ৩ দলের হলেও এবারের টুর্নামেন্ট ছিল ৫ দলের।

এবারের টুর্নামেন্টের আরেকটা গুরুত্বপূর্ণ উদ্দেশ্য ছিল ট্যালেন্ট খুজে বের করা। কারন এখন শুধু বোর্ড কর্মকর্তারাই নয়, ভক্তরাও নজর রাখছে এই লীগে।

এই লীগের মাত্র ৬ রাউন্ড শেষ হতে না হতেই আলো ছড়িয়েছে নতুন কিছু ক্রিকেটার।এদের মধ্যে মেহেদি হাসানের নাম আসবে সবার আগে। নিজের দলের হয়ে প্রতিদিন ব্যাট ও বল হাতে অবদান রাখছেন তিনি।

এছাড়া উল্লেখ করতে হবে আরেক ক্রিকেটারের নাম, তিনি হচ্ছেন আনিসুল হক ইমন। চলমান টি-২০ টুর্নামেন্টে মিনিস্টার গ্রুপ রাজশাহীর হয়ে খেলছেন আনিসুল ইমন।

টুর্নামেন্টে নিজেদের প্রথম ম্যাচে বেক্সিমকো ঢাকার বিপক্ষে ম্যাচে ২৩ বলে ৩৫ রানের ইনিংস খেলেই নজরে আসেন এই তরুণ।নিজেকে এই টুর্নামেন্ট দিয়ে নতুন করে চেনালেও দেশের ঘরোয়া ক্রিকেটের সাথে তার সখ্যতা আগে থেকেই।

গত ২০১৯ ঢাকা প্রিমিয়ার লিগে ইমন খেলেছিলেন উত্তরা স্পোর্টিং ক্লাবের হয়ে। পরে অসমাপ্ত ২০২০ সালের প্রিমিয়ার লিগে ওল্ড ডিওএইচএসের হয়েও একটি ম্যাচে ফিফটি করেছিলেন।

ইমনের ব্যাটিংয়ে মুগ্ধ হয়ে প্রতিভাবান এই ক্রিকেটারের খোঁজ নিচ্ছেন বিসিবি প্রেসিডেন্টস নাজমুল হাসান পাপন এমনটা জানিয়েছেন সিসিডিএম চেয়ারম্যান কাজি ইনাম। সংবাদ মাধ্যমকে তিনি বলেন,

”আমাদের বোর্ড প্রেসিডেন্ট প্রথম খেলায় বলল যে, আনিসুল প্লেয়ারটা কোন টিম থেকে? সে কোন সিস্টেমের কোন জায়গা থেকে আমাদের তেমন ধারণা নাই।

অথচ সে কিন্তু গত দুই বছর ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ খেলেছে, ভালো খেলেছে। এই ধরনের খেলোয়াড়দের কিন্তু আলাদা আলাদা ক্লাব তৈরি করে। প্রিমিয়ার লিগে তারা নিজেদের দেখানোর সুযোগটা পায়।”