দুইদিনের ব্যবধানে দুই স্বজন হারালেন সাকিব

সাকিব আল হাসানের সময়টা ভালো যাচ্ছে না। বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপ দিয়ে প্রতিযোগিতামূলক ক্রিকেটে ফিরলেও পারিবারিক কারণে খেলা হচ্ছে না ফাইনাল।

এবার দুই দিনের ব্যবধানে তিনি হারালেন কাছের দুই স্বজনকে।গুরুতর অসুস্থ অবস্থায় মা’রা গেছেন সাকিবের শ্বশুর মমতাজ উদ্দিন সরদার। তিনি যুক্তরাষ্ট্রে চিকিৎসাধীন ছিলেন।

অনেক দিন যাবত অসুস্থতায় কাটছিল মমতাজ উদ্দিন সরদারের। সম্প্রতি তার শারীরিক অবস্থার অবনতি ঘটে। দুঃসময়ে সাকিব জেমকন খুলনা থেকে ছুটি নিয়ে ধরেছিলেন যুক্তরাষ্ট্রের বিমান।

গতরাত ১টায় এমিরেটস এয়ারলাইন্সে চেপে দেশ ছেড়ে তিনি এখনো যুক্তরাষ্ট্রের পথে। সাকিব যুক্তরাষ্ট্রে পৌঁছানোর আগেই পৃথিবীর মায়া কাটিয়ে শে’ষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন তার শ্বশুর।

বুধবার (১৬ ডিসেম্বর) যুক্তরাষ্ট্রে মৃত্যুবরণ করেন উম্মে আহমেদ শিশিরের বাবা। প্রয়াত মমতাজ উদ্দিনের বাড়ি নরসিংদীর মনোহরদীর খিদিরপুর ইউনিয়নে।

তার মরদেহ দেশে আনা হবে কি না তা এখনো নিশ্চিত নয়। সাকিব যুক্তরাষ্ট্রে পৌঁছানোর পর নেওয়া হবে সেই সিদ্ধান্ত।সাকিবকে অবশ্য স্বজন হারানোর বেদনা সইতে হয়েছে দিন দুয়েক আগেও।

গত রবিবার মারা যান সাকিবের ফুপা কাজী ওমর আলী। মাত্র ৬০ বছর বয়সে স্ট্রোক করে শে’ষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেন তিনি। তাকে মাগুরের মিঠাপুরে দা’ফন করা হয়েছে।

সাকিব আল হাসানের ফুপাত ভাই সোহান তার বাবার মৃ’ত্যুর খবরটি নিশ্চিত করেন।বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপে ৯ ম্যাচ খেলেছেন সাকিব। ব্যাট হাতে করেছেন ১১০ রান।

৯ ম্যাচে সাকিবের নামের পাশে ১১০ রান নিশ্চয়ই সাকিবসুলভ নয়। তবে নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে সাকিব যে মাঠে ফিরেছেন, তাতেই স্বস্তিতে ছিলেন তার সমর্থকরা। বল হাতে সাকিব অবশ্য বরাবরের মত ভালো করেছেন।

মোটে ৬টি উইকেট শিকার করলেও বেশিরভাগ ম্যাচে আঁটসাঁট বোলিং ফিগার ছিল সাকিবের।সদ্য প্রয়াত শ্বশুরের অসুস্থতার কারণে সাকিব বায়ো বাবল ছেড়ে যুক্তরাষ্ট্রে যাওয়ার সিদ্ধান্ত নেন।

১৮ ডিসেম্বর অনুষ্ঠিত হবে বঙ্গবন্ধু টি-টোয়েন্টি কাপের ফাইনাল। মাশরাফি-মাহমুদউল্লাহদের খুলনাকে শিরোপা জয়ের ছক কষতে হবে সাকিবকে বাদ দিয়েই। হাই ভোল্টেজ ফাইনালে দলটির প্রতিপক্ষ গাজী গ্রুপ চট্টগ্রাম।