বাংলাদেশ সফরে আসছে আয়ারল্যান্ড দেখেনিন সূচী

আগামী বছরের ফেব্রুয়ারিতেই বাংলাদেশ সফরে আসছে আয়ারল্যান্ড ‘এ’ দল। সবকিছু ঠিক থাকলে ফেব্রুয়ারির ১৭ তারিখ ঢাকায় পা রাখবে আইরিশরা।

বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল বিশ্বকাপ জয়ের পর আর মাঠে নামতে পারেনি তেমনভাবে। বেশ কয়েকজন ক্রিকেটার প্রেসিডেন্টস কাপ ও বঙ্গবন্ধু টি-২০ কাপ টুর্নামেন্টে অংশ নিলেও বেশিরভাগ ক্রিকেটাররাই ছিলেন এর বাইরে। তাদের নিয়ে অবশ্য লম্বা সময় ধরে ক্যাম্প চলেছিল।

করোনা কাটিয়ে বাংলাদেশ জাতীয় দল আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ফিরছে উইন্ডিজের বিপক্ষে হোম সিরিজ দিয়ে। তবে এরপরই আয়ারল্যান্ডকে আতিথ্য দিবে যুবারা।

বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকেও ইতোমধ্যে সব রকম প্রস্তুতি নেয়া শুর হয়ে গেছে আয়ারল্যান্ড ‘এ’ দলের বিপক্ষে সিরিজকে নিয়ে।

আইরিশদের বিপক্ষে বাংলাদেশ এইচপি দল ৪টি ওয়ানডে এবং একটি চার দিনের ম্যাচ খেলার কথা রয়েছে।

বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামউদ্দিন চৌধুরী সুজন জানিয়েছেন জাতীয় দল এবং অনূর্ধ-১৯ দলের পর পর্যায়ক্রমে চালু করা হবে সব দলের কার্যক্রম।

তার ভাষ্য, ‘’বোর্ডের যতগুলো দল রয়েছে সবগুলোর কার্যক্রম পর্যায়ক্রমে শুরু হবে। অনূর্ধ্ব-১৯ এবং জাতীয় দলের ক্যাম্প দিয়ে আমরা শুরু করেছিলাম। আন্তর্জাতিক সিরিজ আয়োজনের প্রস্তুতি হিসেবে তিনটি টুর্নামেন্ট করেছি।‘’

বাংলাদেশ জাতীয় দলের বিপক্ষে ক্যারিবিয়ানরা সিরিজ খেলে বিদায় নেয়ার পর ঢাকায় আসবে আইরিশরা এমনটাই জানিয়েছেন বিসিবির এই সিইও।

নিউ নরমাল পদ্ধতিতে সবকিছু মানিয়ে নেয়ার প্রস্তুতির কথা জানিয়ে তিনি আরও বলেন, ‘’ওয়েস্ট ইন্ডিজ খেলে যাওয়ার পর আয়ারল্যান্ড এইচপি খেলবে ঢাকায়।

অনূর্ধ্ব-১৯ দলের খেলা হবে। নিউ নরমাল সময়ের সঙ্গে মানিয়ে নিয়ে কার্যক্রম চালাতে হবে। আমরা জানি, বৈশ্বিক করোনা পরিস্থিতির উন্নতি হলে অনেক খেলা খেলতে হবে। সে কারণে আগে থেকে নিজেদের প্রস্তুত রাখা।‘’

অন্যদিকে আইরিশ ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা হয়েছে সিরিজের সবগুলো ম্যাচ যেন আয়োজন করা হয় ঢাকায়। তবে বিসিবির পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে চারদিনের ম্যাচটি অন্তত চট্টগ্রামে আয়োজন করার চেষ্টা হচ্ছে।

শেষ পর্যন্ত যদি চট্টগ্রামে আয়োজন সম্ভব না হয় তাহলে বিকল্প হিসেবে ম্যাচ হতে পারে ফতুল্লার খান সাহেব ওসমান আলী স্টেডিয়ামে।