প্রিমিয়ার লিগ টিভিতে সম্প্রচারে বাধা বিসিবির কঠিন শর্ত

আগামী ১৮ মার্চ জোহানেসবার্গের সেঞ্চুরিয়নে দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে প্রথম ওয়ানডে বাংলাদেশের। তামিম ইকবাল, সাকিব আল হাসান,

মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, লিটন দাস আর মোস্তাফিজরা যখন প্রোটিয়াদের বিপক্ষে ওয়ানডে সিরিজে মাঠে নামবেন তারও তিনদিন আগে, ১৫ মার্চ দেশের মাঠে শুরু হবে ঢাকা প্রিমিয়ার ক্রিকেট লিগ-২০২২।টাইগারদের দক্ষিণ আফ্রিকা মিশন টিভিতে দেখা যাবে।

তিন ওয়ানডের সাথে দুই ম্যাচের টেস্ট সিরিজও ঘরে বসে দেখবেন দর্শকরা।জাতীয় দলের খেলার সঙ্গে তুলনা চলে না। হোক তা টেস্ট, ওয়ানডে কিংবা টি-টোয়েন্টি ফরম্যাট। টিম বাংলাদেশের খেলা মানেই পুরো বাংলাদেশের সম্পৃক্ত হয়ে যাওয়া। সেখানে প্রিমিয়ার লিগ নিয়ে হয়তো এতটা আকর্ষণ মোটেও কাজ করবে না।

কঠিন সত্য হলো ঘরোয়া ক্রিকেটের সেই রমরমা দিনও এখন আর নেই। তারপরও বিপিএলের আকর্ষণ কম নয়। আর দেশীয় ক্রিকেট আসর গুলোর মধ্যে ঢাকার ক্লাব ক্রিকেটের প্রধান আসর প্রিমিয়ার লিগকে ঘিরেও দর্শক, ক্রিকেট অনুরাগি ও ভক্তদের আগ্রহ আছে কিছুটা বৈকি।মাঠে গিয়ে খেলা দেখার দর্শক, ভক্ত ও সমর্থকের সংখ্যা যদিও কম, তবে আগ্রহী ক্রিকেট অনুরাগির সংখ্যা কিন্তু কম নয়। প্রচুর।

এখনো অনেকেরই উৎসাহ-উদ্দীপনার কেন্দ্রবিন্দু ঢাকার ক্লাব ক্রিকেট।দেশের ক্রিকেটের একমাত্র জমজমাট ওয়ানডে আসর প্রিমিয়ার লিগ ঘরে বসে টিভিতে দেখতে মুখিয়ে ক্রিকেট অন্তঃপ্রাণ অনুরাগিরা। কিন্তু সেটা কিভাবে সম্ভব? প্রিমিয়ার লিগ কী বাংলাদেশের কোন টিভিতে সম্প্রচার করা হবে?বিসিবি সূত্রে জানা যাচ্ছে, সম্ভাবনা আছে।

একাধিক টিভি চ্যানেল এবারের প্রিমিয়ার লিগ টিভিতে সরাসরি দেখাতে আগ্রহী এবং সেটা রেখে ঢেকে নয়। বোর্ডের কাছে প্রস্তাব আকারেও গেছে।জানা গেছে, দেশের একমাত্র স্পোর্টস চ্যানেল ‘টি স্পোর্টস’ এবং জি টিভি (গাজী টিভি) এবারের প্রিমিয়ার লিগে শেরে বাংলা ক্রিকেট স্টেডিয়ামের ম্যাচগুলো সরাসরি সম্প্রচার করতে চায়।

বিসিবির কাছে তারা আনুষ্ঠানিক প্রস্তাবও পাঠিয়েছে। দু’পক্ষের মধ্যে কথাও চলছে। বিসিবির ফিন্যান্স কমিটির চেয়ারম্যান ইসমাইল হায়দার মল্লিক আজ বিকেলে জাগো নিউজের সাথে আলাপে এসব কথা জানান।মল্লিক সোজাসুজি জানিয়ে দিয়েছেন, ‘আমরা টিভি সম্প্রচার স্বত্ত্বের জন্য ৫ কোটি আর অনলাইন (ফেসবুক, ইউটিউব ও অন্যান্য) দেড় কোটি টাকা চেয়েছি।

এখন যে বা যারা আমাদের (বোর্ডের) অফার মেনে সম্প্রচার স্বত্ত বাবদ অর্থ প্রদান করবে, তারাই খেলা দেখাতে পারবে।’বিসিবি অর্থ কমিটির চেয়ারম্যান সোজা অর্থের পরিমাণ জানিয়ে দিলেও খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, আগ্রহী টি-স্পোর্টস এত বিপুল পরিমান টাকা সম্প্রচার স্বত্ত দিতে দ্বিধায়।

যোগাযোগ করে জানা গেছে, টিভি সম্প্রচার স্বত্ত বাবদ টি স্পোর্টস অত টাকা দিতে রাজি নয়। তবে চ্যানেলটির খেলা দেখানোর আন্তরিক ইচ্ছেও আছে; কিন্তু ৫ কোটি টাকা টিভি রাইটস, তাদের জন্য একটু বেশিই হয়ে যাচ্ছে। তাতে করে তাদের পোষাবে না। এমন চিন্তায় টি-স্পোর্টস ডিজিটাল পদ্ধতি মানে ইউটিউব আর ফেসবুকে খেলা দেখানোর কথা ভাবছে।’

যোগাযোগ করে জানা গেছে, টিভি সম্প্রচার স্বত্ত বাবদ বিসিবি যে পরিমাণ অর্থ চেয়েছে বা চাচ্ছে তার পরিমাণ কমিয়ে দিলে টি-স্পোর্টস সরাসরি প্রিমিয়ার লিগ টিভিতে দেখাতে আগ্রহী।দু’পক্ষের কথা-বার্তায় একটা বিষয় পরিষ্কার, বিসিবি সম্প্রচার স্বত্ত বাবদ দাবি করা ৫ কোটি টাকার অংক কমিয়ে ফেললে টি-স্পোর্টসের সঙ্গে রফা হয়ে যেতে পারে।

তাহলে ঢাকা প্রিমিয়ার লিগ টিভিতে দেখতে পাবেন দর্শকরা। না হয় শুধু অনলাইনেই দেখতে হবে।দেশের ক্রিকেটের একমাত্র ৫০ ওভারের জনপ্রিয় টুর্নামেন্ট টিভিতে সম্প্রচারের অর্থ প্রিমিয়ার লিগ কোটি ক্রিকেট অনুরাগি, ভক্ত ও সমর্থকের হাতের নাগালে চলে আসা।বলা হয় বিসিবি বিশ্বেরর পঞ্চম ধনী ক্রিকেট বোর্ড।

দেশের ক্রিকেটের সবচেয়ে জমজমাট ও প্রতিদ্বন্দ্বীতাপূর্ণ আসর টিভিতে সম্প্রচারে বিসিবি যদি অর্থনৈতিকভাবে একটু ছাড় দেয়, তাতে ক্ষতি কি?তাতে প্রিমিয়ার লিগের জনপ্রিয়তা, আকর্ষণ তো আরো বাড়বে।

ক্লাবগুলোও উৎসাহিত হবে। আর এই টুর্নামেন্ট খেলে যে দেশের অন্তত দেড় শতাধিক ক্রিকেটার জীবনধারণ করেন, তাদের সামাজিক পরিচিতিও বাড়বে।

ক্লাবগুলোর কাছে ডিমান্ডও বেড়ে যাবে। সব মিলে দেশের ক্রিকেটেরই উপকার হবে।দেশের ক্রিকেট, ঢাকার ক্লাব ও ক্রিকেটার-কোচদের কথা ভেবে প্রিমিয়ার লিগ টিভিতে সম্প্রচারের জন্য বিসিবি কী আরও ইতিবাচক মানসিকতা নিয়ে এগিয়ে আসবে?