৫ জানুয়ারি শুরু বিপিএল, পুরোনো ফ্র্যাঞ্চাইজিরা ফিরে বিপিএলকে পুনরায় চাঙা করে তুলবে : নাজমুল হাসান পাপন

গত বছর নতুন করে বিপিএল আয়োজন করার ঘোষণা দিয়েছিল বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড। বিপিএলকে নতুন করে চাঙা করতে আবারো বেশ কিছু পরিকল্পনা কথা জানিয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড।

সে সাথে আগামী তিন বছরের সূচিও চূড়ান্ত হয়েছে। ২০২৩ সালে বিপিএলের নবম আসর শুরু হবে ৫ জানুয়ারি থেকে। ৪৩ দিনের টুর্নামেন্ট চলবে ১৬ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত।

২০২৪ সালে ৬ জানুয়ারি থেকে ১৭ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত টুর্নামেন্ট অনুষ্ঠিত হবে। এই আসরও ৪৩ দিনের। ২০২৫ সালের প্রথম দিন থেকে বিপিএল শুরু হবে।

৪২ দিনের বিপিএল চলবে ১১ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত। আজ বিসিবির সভা শেষে এ খবর নিশ্চিত করেছেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

সাতটি দলের অংশগ্রহণে এই টুর্নামেন্ট আয়োজন করার ইচ্ছা আয়োজকদের।নাজমুল হাসান বলেছেন, “আগামী তিন বছরে বিপিএল কখন হবে সেটা নির্ধারণ হয়েছে।

কারণ, ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোকে ৩ বছরের জন্য দল দেবো। এখন যেহেতু তারিখ হয়ে গেছে, এখন এক সপ্তাহের মধ্যে বাকিটা নির্ধারিত হয়ে যাবে।”

দীর্ঘ মেয়াদে ফ্র্যাঞ্চাইজি স্বত্ব বিক্রি করার কারণ জানাতে গিয়ে নাজমুল হাসান বলেছেন, “দীর্ঘ সময়ের জন্য দল দিলে ফ্র্যাঞ্চাইজিদের নিজেদের পরিকল্পনা ঠিক করার সময় পায়।

সেটা বিবেচনা করে সামনে আগের মতো সব থাকবে, তাও না। কিছু কিছু পরিবর্তন আসতে পারে। আমরা সব বিষয়গুলো পরিস্কার করেই বিজ্ঞাপন দেবো।

টার্মস ও কন্ডিশনগুলো কিছুদিনের মধ্যেই নির্ধারণ হয়ে যাবে।”গত বছর বিপিএল আয়োজন করলেও সে সময় অংশগ্রহণ করেনি বিপিএলের সবচেয়ে জনপ্রিয় কয়েকটি ফ্রাঞ্চাইজি।

বিপিএলের নিয়মিত ফ্র্যাঞ্চাইজি ঢাকা ডায়নামাইটস, রংপুর রাইডার্স, খুলনা টাইগার্স ও কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স। কুমিল্লা ভিক্টোরিয়ান্স গত বছর খেললেও বাকিরা কেউ আসেনি। নাজমুল হাসান পাপনের বিশ্বাস, পুরোনো ফ্র্যাঞ্চাইজিরা ফিরে বিপিএলকে পুনরায় চাঙা করে তুলবে।