জিম্বাবুয়ে সফরে যাওয়ার আগে দল নিয়ে যা বললেন তামিম

টি-টোয়েন্টি দলের পাশাপাশি জিম্বাবুয়ে সফরের জন্য ঢাকা ছেড়েছেন ওয়ানডে টিমের সদস্যরা। তামিম ইকবাল ছাড়াও গেছেন মাহমুদউল্লাহ, মুশফিকুর রহিম ও তাইজুল ইসলাম।

উড়াল দেওয়ার আগে তামিম বলেন, জিম্বাবুয়ে সফরে মাঠের পারফরমেন্সকেই তিনি গুরুত্ব দিচ্ছেন। একইসঙ্গে টি-টোয়েন্টি অধিনায়ক নুরুল হাসান সোহানের ওপর ভরসা রয়েছে বলেও জানান তিনি।

শুক্রবার রাত সাড়ে ১১টার পর বিমানবন্দরে হাজির তামিম ইকবাল, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহিম ও তাইজুল ইসলাম। ক্রিকেটারদের বিদায় জানাতে টার্মিনালের গেটে ভিড় টাইগার ভক্তদের।

জিম্বাবুয়ে সফরে নিজেদের ফেবারিট মানলেও মাঠের পারফরমেন্সের প্রতি জোর দেন ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবাল।তিনি বলেন,

কে আগে আছে কে পেছনে আছে এগুলো কোনো ম্যাটার করে না বরং কে ভালো খেলছে বা কে খারাপ খেলছে সেটাই বেশি গুরুত্বপূর্ণ।

ওদের দেশেও আমরা অবশ্যই ওদের চেয়ে ভালো দল, এটা নিয়ে কোনো সন্দেহ নেই; কিন্তু ওদের দেশে যে খুব সহজে ওদের হারানো যাবে ব্যাপারটা এমনও না।

দলে এখন সিনিয়র-জুনিয়র নিয়ে বিস্তর আলোচনা চললেও, সেই বিষয়ে নিজের অনাগ্রহের কথা জানান তামিম। সেই সঙ্গে দলের জয়ে অবদান রাখতে গুরুত্ব দেন তিনি।

তামিম আরও বলেন, ইয়াং-ওল্ড এটা নিয়ে ইদানীং একটু বেশিই কথা হচ্ছে। আমার মনে হয় যে যারা সেরা ১৫ জনের স্কোয়াডে সুযোগ পাওয়ার যোগ্য তাদের মধ্য থেকেই আমরা সেরা নির্বাচন একাদশ করব।

জিম্বাবুয়ে সফরে টি-টোয়েন্টি সিরিজে বাংলাদেশ দলকে নেতৃত্ব দিচ্ছেন নুরুল হাসান সোহান। নতুন অভিজ্ঞতা হলেও এই উইকেটরক্ষক-ব্যাটারের উপর পূর্ণ আস্থা ওয়ানডে অধিনায়কের।

সোহানের অধিনায়কত্ব প্রসঙ্গে তামিম বলেন, ও (সোহান) ঘরোয়া ক্রিকেটে এর আগে অধিনায়কত্ব করেছে। এটা ওর জন্য একটা নতুন ও ব্যতিক্রমী চ্যালেঞ্জ হতে যাচ্ছে। আমি অবশ্যই চাই ও ভাল করুক, দোয়া রইল।