তোমরা আমাদের পেস বোলিং দিয়েই হারিয়ে দিলে: বিসিবির প্রধান

তোমরা আমাদের পেস বোলিং দিয়েই হারিয়ে দিলে বিসিবির প্রধান নাজমুল হাসান পাপন। বাংলাদেশ দল জিম্বাবুয়ের উদ্দেশ্যে রওনা হওয়ার আগেই ইংল্যান্ডের বিমানে উঠেন নাজমুল হাসান পাপন।

উদ্দেশ্য আইসিসির বার্ষিক সভায় যোগদান।বুধবার ইংল্যান্ডের বার্মিংহামে ওই সভা অনুষ্ঠিত হয়েছে। আর সেই সভায় বাংলাদেশ ক্রিকেটের ভূয়সী প্রশংসা করেছেন ক্রিকেটবিশ্বের নীতিনির্ধারকরা।

বিশেষ করে বাংলাদেশের পেস বোলিং আক্রমণের প্রশংসা করা হয়েছে বলে জানালেন বিসিবি সভাপতি।বুধবার ইংল্যান্ড থেকে মোবাইল ফোনে গণমাধ্যমকে পাপন জানান, এবারের সভায় নানা ইস্যুতেই প্রশংসিত হচ্ছে বাংলাদেশ।

বিশেষ করে পেস বোলিং ইউনিটের উচ্ছ্বসিত প্রশংসা করেন সদস্য দেশগুলোর কর্মকর্তারা।বিসিবি সভাপতি বলেন, এজিএমে যোগ দেওয়ার পর থেকেই আমাদের পেস বোলিংয়ের প্রশংসা শুনছি।

নিউজিল্যান্ডে টেস্ট জয় এবং দক্ষিণ আফ্রিকায় ওয়ানডে সিরিজ জেতাতে পেস বোলারদের অবদানকে উন্নতি হিসেবে দেখছেন তারা।

দুই বোর্ডের কর্মকর্তারাই বলছেন তোমরা পেস বোলিং দিয়ে হারিয়ে দিলে আমাদের। বাংলাদেশ পেস বোলিংয়ে এত উন্নতি করেছে, কল্পনাতেও ছিল না।

এমন দারুণ উন্নতি কীভাবে সম্ভব হলো তারা জানতে চান পাপনের কাছে।এভাবে এগিয়ে যেতে থাকলে টেস্ট ফরম্যাটেও বাংলাদেশ ভালো করবে বলে মত তাদের।

পাপন বলেন, সভায় সবাই বলেছেন, দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা নিলে টেস্টে আমরা ভালো করতে পারব আমরা। ওয়ানডেতে তো আগে থেকেই ভালো।

টেস্টে এক বছর ফোকাস করলে ভালো করা সম্ভব হবে। এ জন্য লাল বলের ক্রিকেট নিয়ে নানা পরিকল্পনা নেওয়া হচ্ছে। অনূর্ধ্ব-১৭ দল আসামে খেলতে গেছে।

‘এ’ দল যাচ্ছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। জিম্বাবুয়েতে নতুন টি-টোয়েন্টি দল পাঠালাম।আশা করি, ভালো কিছু হবে। এ প্রশংসায় বিসিবির অর্থনৈতিক বিষয়টিও যুক্ত হয়েছে বলে জানালেন পাপন।

বললেন, আইসিসিতে বিসিবির গুরুত্ব আগের চেয়ে বেড়েছে। বিসিবির আর্থিক সক্ষমতাকে গুরুত্বের সঙ্গে দেখা হচ্ছে।কারণ সব বোর্ডই আর্থিক সমস্যায় আছে। আইসিসির কাছে ফান্ড চেয়ে আবেদন করেছে। কিন্তু আমরা বিসিবি থেকে কোনো টাকা চাইনি। এই দিকটা সবার নজরে এসেছে।