সাকিবের সাথে সম্পর্ক নিয়ে মুখ খুললেন তামিম ইকবাল

ক্যারিয়ারের শুরু থেকেই সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল দুজনই বাংলাদেশ দলের গুরুত্বপূর্ণ সদস্য। ক্রমেই দুজন হয়ে ওঠেন দলের অবিচ্ছেদ্য অংশ।

দুজনই যখন নিজ নিজ ক্যারিয়ারের শেষ ভাগে, তখনও সাকিব-তামিম ছাড়া দলের কথা চিন্তা করা দুরূহ।‘১৫৫’ নয়, ‘২৮০’ রান লক্ষ্য ধরে ব্যাট করেছে বাংলাদেশএই দৃশ্যের মতই অন্তরঙ্গ সম্পর্ক সাকিবের সাথে, দাবি তামিমের।

যদিও সাকিব ও তামিমের বর্তমান সম্পর্ক নিয়ে অনেক কানাঘুষা আছে। একসময় তাদের আখ্যায়িত করা হত ‘দুই বন্ধু’ বলে। সেখান থেকে ধীরে ধীরে তা রূপ নিয়েছে বৈরি আবহাওয়ার মত এক সম্পর্কে।

তবে তার সবটাই ‘শোনা কথা’।দক্ষিণ আফ্রিকার বিরুদ্ধে সিরিজ জয়সূচক রানগুলো এসেছে তামিম ও সাকিবের ব্যাট থেকে। দুই কাণ্ডারি অপরাজিত থেকে মাঠ ছাড়েন ঐতিহাসিক সিরিজ জয় নিশ্চিত করে।

একে অপরকে আলিঙ্গন করেন, হাসিমুখে ভাগাভাগি করেন উচ্ছ্বাস আর উল্লাস।তামিম জানালেন, এই দৃশ্যের মতই সাকিবের সাথে সুন্দর সম্পর্ক তার।

তিনি বলেন, ‘আলোচনা তো দেখা যায় না, শুধু শোনা যায়। কাল যা দেখেছেন এটা দেখা যায়। কোনটা বিশ্বাস করবেন?

যেটা দেখবেন এটাই তো বিশ্বাস করবেন।’সাকিব তার ক্রাইসিস ড্রেসিংরুমে বুঝতে দিচ্ছে না বাশার বাংলাদেশের ঐতিহাসিক ওয়ানডে সিরিজ জয় নিশ্চিত করে দেশে ফিরছেন সাকিব।

পরিবারের সদস্যদের অসুস্থতা সত্ত্বেও সাকিব ওয়ানডে সিরিজের সবগুলো ম্যাচ খেলেছেন, সিরিজ জয়েও রেখেছেন বড় অবদান। ঐতিহাসিক সিরিজ জয় নিশ্চিত করে তবেই ফিরেছেন দেশে।

তামিমও মানছেন, সাকিবের মত এমন নিবেদনের নজির খুব কমই আছে।তিনি বলেন, ‘সাকিব যা করেছে, তারা খুব বেশি মানুষ করবে না।

এই পরিস্থিতিতে অনেকেই পরিবারের কাছে যেতে চাইত, যেটা মোটেই ভুল কিছু না। তবে সে যা করেছে তার জন্য অনেক বড় মনের দরকার। সে সেঞ্চুরি করেছে কি না বা ৫ উইকেট পেয়েছে কি না তা গুরুত্বপূর্ণ না। যে নিবেদন সে দেখিয়েছে সেটাই গুরুত্বপূর্ণ।’