“মৃত্যুঞ্জয় খুব ইমপ্রেসিভ” – মিঠুন

বাংলাদেশ এ দল, বাংলাদেশ এ দল বনাম ওয়েস্ট ইন্ডিজ এ দল, মৃত্যুঞ্জয় খুব ইমপ্রেসিভ, মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী

মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী নামটি ক্রিকেট পাড়ায় এখন বেশ পরিচিত। ইনজুরির সাথে লড়াই করে ফেরা মৃত্যুঞ্জয় দেখাচ্ছেন আশার আলো।

বল হাতে দুর্দান্ত লাইন-লেন্থের সাথে দারুণ আগ্রাসনে মুগ্ধতা ছড়ানো মৃত্যুঞ্জয়ে মন ধরেছে এ দলের কাপ্তান মিথুনের।

ওয়েস্ট ইন্ডিজ এ দলের বিপক্ষে প্রথম চারদিনের ম্যাচে সুযোগ না মিললেও দ্বিতীয় ম্যাচে সুযোগ পেয়েছিলেন এই উঠতি তারকা। সুযোগ পেয়ে নিজের জাত চিনিয়েছেন,

পকেটে পুড়েছেন দুই উইকেট। বৃষ্টির কারণে মাঠে গড়ায়নি খুব বেশী বল! উইকেট দুইটি শিকার করলেও মৃত্যুঞ্জয়ের বোলিং ছিলো চোখে পড়ার মতো।

লম্বা রানআপে ছুটে এসে দারুণ লাইন-লেন্থে বল করা মৃত্যুঞ্জয়ের প্রশংসা করে মিঠুন বলেন, “স্কোরবোর্ড সেটা দেখাচ্ছে না ওরা কত ভালো বল করেছে।

কিন্তু ব্যক্তিগতভাবে আমি খুশি। টেস্ট ম্যাচে যে ধৈর্য দরকার, আমি ওটা দেখেছি। মৃত্যুঞ্জয় খুব ইম্প্রেসিভ। ওর বোলিং খুব ভালো লেগেছে। যতক্ষণ বল করেছে, এফোর্ট দিয়েছে।”

মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী আকবর আলীর নেতৃত্বে খেলেছেন অনূর্ধ্ব-১৯ ক্রিকেটে। দলের প্রয়োজন মিটিয়েছিলেন বেশ। যদিও বিশ্বমঞ্চে মাত্র দুই ম্যাচ খেলে দেশে ফিরতে হয়েছিলো ইনজুরির কারনে।

এরপর নিজেকে ফিরে পাওয়ার লড়াই চালিয়ে অবশেষে মাঠে ফিরেন। সর্বশেষ বিপিএলে চট্টগ্রামের জার্সিতে নজর কাড়েন মৃত্যুঞ্জয়। আসরে হ্যাটট্রিকও করেন এই বাঁহাতি পেসার।

মৃত্যুঞ্জয় চৌধুরী বলের সাথে ব্যাটিংয়েও পারদর্শীতা দেখিয়েছেন। স্বপ্ন দেখেন একদিন জাতীয় দলের জার্সি গায়ে বিশ্ব মাতাবেন। সেই লক্ষ্যে ছুটে চলা মৃত্যুঞ্জয়কে অনেকটাই সাহস জুগিয়েছে কাপ্তান মিঠুনের কথাগুলো। জেনে রাখা ভালো, এশিয়া কাপের স্ট্যান্ডবাই হিসেবে জায়গা হয়েছে সাতক্ষীরা থেকল উঠে আসা মৃত্যুঞ্জয়ের।