ওপেনিংয়ে খেলতে পারেন তারা, কিন্তু তারা ওপেনার হিসাবে কেমন?

এশিয়া কাপের জন্য এরই মধ্যে ১৭ সদস্যের বাংলাদেশ দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড।

লিটনের ইনজুরি থাকায় এই দলে ওপেনার বলতে মাত্র ২ জন; এনামুল হক বিজয় ও পারভেজ ইমন। এর মধ্যে ইমন আবার দলে নতুন সদস্য।

জেনুইন ওপেনার এই দুজন থাকলেও ওপেনিং নিয়ে বিসিবির আরও ভাবনা আছে বলে সোমবার সাংবাদিকদের জানিয়েছেনবিসিবির ভাবনায় ওপেনিং করানোর তালিকায় আছেন যথাক্রমে সাকিব আল হাসান,

মুশফিকুর রহিম, শেখ মাহেদী হাসান ও মেহেদি হাসান মিরাজ। এক নজরে দেখে নিই জতীয় দলের হয়ে ওপেনিং এর মধ্যে কার পাফর্মেন্স কেমন।

সাকিব আল হাসানঃ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে সাকিব মাত্র এক ম্যাচে ওপেনিং করতে নেমেছিলেন ২০২১ সালে। ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে নেমে ১২ বলে ৯ রান করে আউট হন।

মুশফিকুর রহিমঃ ওপেনার হিসাবে হুট করে ব্যাট করতে নেমে সুখ্যাতি আছে মুশফিকুর রহিমের। ২০০৯ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ওপেনিং করতে নেমে ৯৮ রান করেছিলেন মুশফিক।

এরপর দীর্ঘ এক দশক ব্যাট করেছেন মিডল-অর্ডারে। ২০১৯ সালে তি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে আফগানিস্তানের বিপক্ষে ওপেন করতে নেমে ৫ রান করেন মুশফিক।

মাহেদি হাসানঃ ২০২১ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওপেন করতে পাঠানো হয় শেখ মাহেদী হাসান। সেই ম্যাচে মাহদী ১৩ রান করে আউট হন। এটিই ওপেনার হিসাবে মাহদি হাসানের হিসাব-নিকাশ।

মেহেদি হাসান মিরাজঃ ২০১৮ এশিয়া কাপে ভারতের বিপক্ষে ওপেনিং করতে নেমেছিলেন মেহেদি হাসান মিরাজ। সেদিন মিরাজের খেলা ৩৭ রানের ইনিংসটা চোখ ধাঁধানো ছিল। যদিও ম্যাচটি ছিল ওডিআই ফর্মেটের।

যাইহোক বিসিবির ভাবনায় যে ৪ জোন ক্রিকেটার ওপেনিং স্লটের জন্য বিবেচনায় আছেন। তবে শেষ পর্যন্ত কে হবেন বিজয়ের সঙ্গী সেটা সময়ই জানা যাবে।