মাত্র পাওয়াঃ চোট কাটিয়ে এশিয়া কাপেই মাঠে ফিরছে লিটন দাস

এশিয়া কাপ থেকে ছিটকে গেলেন লিটন দাস ও ইয়াসির আলি রাব্বী। জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে হ্যামস্ট্রিংয়ের চোটে পড়ে সফর শেষ হয়ে যায় লিটনের।

চোট থেকে ফিরতে চার সপ্তাহ সময় লাগার কথা আগেই জানিয়েছিল বিসিবি। এর পরও তাঁর বিষয়ে সময় নিচ্ছিল বোর্ড।

মেডিকেল বিভাগের একটি সূত্র নিশ্চিত করেছে, এশিয়া কাপ খেলা হচ্ছে না লিটনের। আগামীকাল সকালে তাঁর এমআরআই করা হবে। চার সপ্তাহ মাঠের বাইরে থাকতে হচ্ছে এই ডানহাতি ব্যাটারকে।

এশিয়া কাপ খেলা হচ্ছে না মিডল অর্ডার ব্যাটার ইয়াসিরেরও। বিসিবির মেডিকেল বিভাগ সূত্র থেকে জানা গেছে, চোট থেকে পুরোপুরি সেরে উঠতে না পারায় তাঁকে এশিয়া কাপের স্কোয়াডে রাখা যাচ্ছে না।

পিঠের পুরোনো চোটের শঙ্কা জাগিয়ে খুলনা থেকে ঢাকায় ফিরেছিলেন ইয়াসির। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে চোটে পড়ে দেশে ফিরে পুনর্বাসনের প্রক্রিয়ার মধ্যে ছিলেন তিনি। এর মধ্যে চোটের কারণে জিম্বাবুয়ে সফরেও যাওয়া হয়নি ইয়াসিরের।

এশিয়া কাপে ফেরার জন্য পুনর্বাসন প্রক্রিয়ার মধ্যে ছিলেন তিনি। বাংলাদেশ টাইগার্সের হয়ে খুলনায় খেলতে যাওয়া ছিল সেটারই অংশ। এইচপির বিপক্ষে ২৮ রানের ইনিংসও খেলেন।

তবে পিঠের ব্যথা মাথাচাড়া দিয়ে উঠতেই মাঠ ছাড়েন।তবে এবার ভেসে আসছে স্বস্তির নিশ্বাস ইয়াসির না থাকলেউ এশিয়া কাপ খেলার প্রবল সসম্ভাবনা আছে লিটন দাস এর।

তবে মিস করতে পারেন গ্রুপ পর্বের ১ম দুই ম্যচ।২৬ তারিখের রিপোর্টের উপর ভিত্তি করে বিসিবির ফিজিওর সবুজ সংকেত পেলেই তাকে দলে নেয়া হতে পারে।

অন্যদিকে মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন এশিয়া কাপে খেলার জন্য ফিট আছেন বলে জানিয়েছে বিসিবির মেডিকেল বিভাগ। তাঁকে স্কোয়াডে রাখা এখন নির্বাচকদের ওপর নির্ভর করছে।