চরম হৃদয় বিদারকঃ দলের সঙ্গে দুবাই যেতে পারলেন না বিজয়-তাসকিন

এশিয়া কাপের উদ্দেশে আর কিছুক্ষণ পরই (বিকেল সোয়া পাঁচটা) দেশ ছাড়ার কথা রয়েছে বাংলাদেশ দলের।

এরই মধ্যে একে একে সব ক্রিকেটার ও কোচিং স্টাফ হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে পৌঁছে গেছেন।জানা গেছে, ঢাকা থেকে প্রথমে চট্টগ্রাম বিমানবন্দর,

অতঃপর সেখানে এক ঘণ্টার ট্রানজিট শেষে দুবাইয়ে যাবেন সাকিব আল হাসান বাহিনী। খবর পাওয়া গেছে, ভিসা জটিলতায় মঙ্গলবার (২৩ আগস্ট) দলের সঙ্গে যাওয়া হচ্ছে না এনামুল হক বিজয় ও তাসকিন আহমেদের।

যতদূর জানা গেছে, আগামীকাল (বুধবার) সব ঠিক থাকলে দেশ ছাড়বেন তারা। এদিকে, এশিয়া কাপের দলে শেষ মুহূর্তে যুক্ত হওয়া নাঈম শেখ এরই মধ্যে দুবাইয়ে পৌঁছে গেছেন।

সেন্ট লুসিয়াতে ওয়েস্ট ইন্ডিজ ‘এ’ দলের সঙ্গে সিরিজ শেষ করেই ধরেন আরব আমিরাতের ফ্লাইট।আগামী ২৭ আগস্ট ছয় দল নিয়ে মাঠে গড়াবে এশিয়া কাপ।

৩০ আগস্ট নিজেদের প্রথম ম্যাচে আফগানিস্তানের বিপক্ষে মাঠে নামবেন টাইগাররা। কিন্তু একের পর এক ইনজুরিতে মাঠে নামার আগেই বিপর্যস্ত লাল সবুজের প্রতিনিধিরা।

সাকিব আল হাসানের কাঁধে নেতৃত্ব দিয়ে প্রথমে ১৩ আগস্ট এশিয়া কাপের জন্য ১৭ সদস্যের দল ঘোষণা করে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

কিন্তু গত ৯ দিনে ইনজুরিতে পড়ে ও ইনজুরির ধকল কাটিয়ে উঠতে না পারায় সে তালিকা থেকে বাদ পড়েন একাধিক ক্রিকেটার। আবার নতুন করে সংযোজন করা হয়েছে অনেককে।

দলের সঙ্গে শেষ মুহূর্তে বদল এসেছে বাংলাদেশ দলের সাপোর্ট স্টাফদের মাঝেও। হেড কোচ রাসেল ডমিঙ্গোকে টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটের দায়িত্ব থেকে অব্যাহতি দিয়েছে বোর্ড।

এশিয়া কাপে তাই হেড কোচ ছাড়াই খেলতে হচ্ছে বাংলাদেশকে। এ টুর্নামেন্টে দলের সঙ্গে থাকবেন নবনিযুক্ত টেকনিক্যাল কনসালটেন্ট শ্রীধরন শ্রীরাম।

এশিয়া কাপে বাংলাদেশ স্কোয়াড:
সাকিব আল হাসান (অধিনায়ক), এনামুল হক বিজয়, মুশফিকুর রহিম, আফিফ হোসেন, মোসাদ্দেক হোসেন, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, শেখ মেহেদী, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, মুস্তাফিজুর রহমান, নাসুম আহমেদ, সাব্বির রহমান, মেহেদী হাসান মিরাজ, এবাদত হোসেন, পারভেজ ইমন, নাঈম শেখ এবং তাসকিন আহমেদ।