দেশে টিকটক বন্ধ করতে বিটিআরসিকে চিঠি

বাংলাদেশে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টিকটক ব্যবহার বন্ধের সুপারিশ করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় কমিটি।

বৃহস্পতিবার (২৫ আগস্ট) স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় সম্পর্কিত সংসদীয় স্থায়ী কমিটির বৈঠকের কার্যবিবরণী থেকে এ তথ্য জানা গেছে।

বৈঠকে টিকটক দেশে তরুণ সমাজের ওপর কী ধরনের প্রভাব ফেলছে ও সমস্যা সৃষ্টি করছে তা নিয়ে ব্যাপক আলোচনা হয়।কমিটির চেয়ারম্যান টুকু বলেন,

নেতিবাচক ব্যবহারের জন্য এরই মধ্যে তোপের মুখে পড়েছে টিকটক। ব্যবহারকারীদের এটি সহিংসতা, গুজব ও ভুল তথ্যের দিকে পরিচালিত করে।

বৈঠকে সোশ্যাল মিডিয়া অ্যাপটি বন্ধ করার সুপারিশ করেন তিনি।এদিকে টিকটক বন্ধের বিষয়ে ন্যাশনাল টেলিকমিউনিকেশন মনিটরিং সেন্টারের (এনটিএমসি) মহাপরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল জিয়াউল আহসান বলেন,

ইন্টারনেটের ৮০ শতাংশ ব্যয় হয় টিকটক অ্যাপের পেছনে।এর আগে একটি পৃথক অনুষ্ঠানে তিনি বলেছিলেন, ‘এই প্ল্যাটফর্মটি প্রতিহিংসামূলক ভুল তথ্য ও ঘৃণামূলক বক্তব্য ছড়িয়ে দিতে ব্যবহৃত হয়।

এর ইতিবাচকের চেয়ে নেতিবাচক ব্যবহার বেশি।’তিনি আরও বলেন, টিকটক অ্যাপ বন্ধ করতে ইতোমধ্যে বিটিআরসিকে চিঠি দেয়া হয়েছে।

এছাড়া সংসদ সচিবালয়ের প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে দেশের সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি নষ্ট করার যে কোনো প্রচেষ্টার বিরুদ্ধে নাগরিকদের সতর্ক থাকার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

কমিটির সভাপতি শামসুল হক টুকুর সভাপতিত্বে সভায় কমিটির সদস্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল, মো. হাবিবুর রহমান, সামছুল আলম দুদু, কুজেন্দ্র লাল ত্রিপুরা, নূর মোহাম্মদ, সুলতান মোহাম্মদ মনসুর আহমদ ও রুমানা আলী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।