অনন্ত জলিলকে মেরে ফেলেছেন আপনারা: অনন্ত জলিল

অনন্ত জলিল অভিনীত সিনেমা ‘দিন দ্য ডে’। ঈদে মুক্তি পাওয়া এই সিনেমা নিয়ে বিতর্ক যেন থামছেই না। বিশেষ করে সোশ্যাল মিডিয়ায় এই সিনেমা নিয়ে নেতিবাচক চর্চা বেড়েই চলছে।

পরিচালক মর্তুজা অতাশ জমজম সিনেমার বাজেট প্রকাশ করে অনন্ত জলিলের বিরুদ্ধে অভিযোগ করে ইন্সট্রাগ্রামে একটি পোস্ট দেওয়ার পর থেকে এই সমালোচনার আগুন আরও দ্বিগুণ হয়ে জ্বলছে।

এসব বিতর্ক নিয়ে অভিমানী সুরে শনিবার (২৭ আগস্ট) বিকালে একটি দীর্ঘ ভিডিওবার্তা প্রকাশ করেন নিজের ভেরিফায়েড ফেসবুক পেজে।

সেখানে তিনি মূলত মুর্তজা অতাশ জমজমের অভিযোগ ও ‘দিন দ্য ডে’ সিনেমার বাজেট প্রসঙ্গে নিজের আত্মপক্ষ সমর্থন করে জানান, চাইলে তিনি এই কথাগুলো আরও আগেই বলতে পারতেন।

তবে তিনি মাঝের কয়েকদিন অপেক্ষা করেছেন তার ভক্ত ও মিডিয়ার আচরণ দেখার জন্য। যা দেখে তিনি হতাশ ও ক্ষুব্ধ হয়েছেন।মিডিয়াকে উদ্দেশ্য করে অনন্ত জলিল বলেন,

‘সত্যতা যাচাই না করে কেমন করে ছবিটিকে ৪ কোটি টাকার বলে হাজার হাজার নিউজ করলেন আপনারা। আপনাদের যাচাইয়ের সময় নাই?

অনন্ত জলিল মানেই আলোচনা-সমালোচনার কম্পিটিশন লেগে যায়। যেকোনো দুর্যোগ হলে অনন্ত ঝাঁপিয়ে পড়ে। কারও বিপদ হলে অনন্ত ছুটে যায়।

মানুষের সহযোগিতায় ঝাঁপিয়ে পড়ে। আমার ফ্যান ক্লাব হয়েছে। কদিন আগেও তাদের ২৫ লাখ টাকা দিয়েছি। কিছুদিন আগে সিলেটে ৩০ লাখ দিয়েছি বন্যার জন্য।

ঢাবিতে বন্যার্তদের জন্য ৫ লাখ দিলাম। করোনার সময় আমি বস্তিতে বস্তিতে ঘুরেছি। আমার ওয়াইফ তার বাচ্চাদের নিয়ে সাহায্য দিয়েছে।

জেলায় জেলায় ঘুরে বেড়িয়েছি মানুষের পাশে দাঁড়ানোর জন্য। নিজের জীবনের মায়া করিনি। এই সময়ে এসে দেখলাম, তারা আমার জন্য আন্দোলন করে কি না।

না, কেউ আমার হয়ে দাঁড়ায়নি। তার মানে আমি এতদিন যা করেছি ভুল করেছি। মানুষের পাশে দাঁড়ানো আমার ভুল ছিল।’অনন্ত আরও বলেন, ‘আপনারা আমাকে বদলে দিয়েছেন।

আমার চোখ খুলে দিয়েছেন। অনন্ত জলিলকে আপনারা মেরে ফেলেছেন। এখন অন্য সেলিব্রেটির মতো আমিও বদলে গেছি। আমাকে আর আগের মতো আপনারা পাবেন না। আপনাদের অনেক ধন্যবাদ।’