সাকিবের ‘১০০’–তে আয়ারল্যান্ডের পাশে বাংলাদেশ

২০০৬ সালের ২৮ নভেম্বর আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে অভিষেক বাংলাদেশের। খুলনায় জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সেই ম্যাচেই অভিষেক সাকিব আল হাসানেরও।

সেই সাকিব আজ খেলতে যাচ্ছেন ১০০তম আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি। মাহমুদউল্লাহ ও মুশফিকুর রহিমের পর বাংলাদেশের তৃতীয় খেলোয়াড় হিসেবে শততম আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলতে যাচ্ছেন সাকিব।

সব দেশ মিলিয়ে ১৫তম খেলোয়াড় হিসেবে ১০০তম আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলতে যাচ্ছেন সাকিব। ২০১৮ সালে ২ জুলাই প্রথম খেলোয়াড় হিসেবে শততম আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি খেলেন পাকিস্তানের শোয়েব মালিক।

আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে ১০০ ম্যাচের ক্লাবে এত দিন সবচেয়ে বেশি সদস্য ছিল আয়ারল্যান্ডের। দলটির তিন খেলোয়াড় পল স্টার্লিং, কেভিন ও’ব্রায়েন ও জর্জ ডকরেল খেলেছেন ১০০-র বেশি ম্যাচ।

আইরিশদের রেকর্ড আজ ছুঁতে যাচ্ছে বাংলাদেশ।আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টিতে সবচেয়ে বেশি ম্যাচ খেলার রেকর্ডটা রোহিত শর্মার। ভারত অধিনায়ক খেলেছেন ১৩৩টি ম্যাচ। ‘১০০’ ক্লাবের প্রথম সদস্য শোয়েব মালিক ১২৪ ম্যাচ নিয়ে আছেন দুইয়ে।

সবচেয়ে বেশি আন্তর্জাতিক টি-টোয়েন্টি

ম্যাচ খেলোয়াড় দল
১৩৩ রোহিত শর্মা ভারত
১২৪ শোয়েব মালিক পাকিস্তান
১২১ মার্টিন গাপটিল নিউজিল্যান্ড

১১৯* মাহমুদউল্লাহ বাংলাদেশ
১১৯ মোহাম্মদ হাফিজ পাকিস্তান
১১৫ এউইন মরগান ইংল্যান্ড
১১৪ পল স্টার্লিং আয়ারল্যান্ড

১১০ কেভিন ও’ব্রায়েন আয়ারল্যান্ড
১০৫ জর্জ ডকরেল আয়ারল্যান্ড
১০৪ ডেভিড মিলার দক্ষিণ আফ্রিকা

১০২ রস টেলর নিউজিল্যান্ড
১০১ কাইরন পোলার্ড ওয়েস্ট ইন্ডিজ
১০০* মুশফিকুর রহিম বাংলাদেশে
১০০ বিরাট কোহলি ভারত
৯৯* সাকিব আল হাসান বাংলাদেশ
৯৯ শহীদ আফ্রিদি পাকিস্তান

এই ১৫ জনের মধ্যে রস টেলর ও বিরাট কোহলি তিন সংস্করণের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটেই ১০০ ম্যাচ খেলেছেন। নিউজিল্যান্ডের টেলরকে কোহলির ছুঁয়েছেন এবারের এশিয়া কাপে ভারত–পাকিস্তান ম্যাচে।