৬০০০ রান ও ৪০০ উইকেটের ‘ক্লাবে’ দ্বিতীয় সাকিব

ম্যাচটা বাঁচা-মরার লড়াই। এমন ম্যাচে অধিনায়ককে সামনে থেকে নেতৃত্ব দিতে হয়। ব্যাট হাতে সাকিব আল হাসান সেই চেষ্টাই করছিলেন।

২২ বলে ২৪ রান করে আরও ভালো কিছুর স্বপ্ন দেখাচ্ছিলেন। কিন্তু তা আর হতে দেননি মহেশ তিকসেনা। বোল্ড করে দিয়েছেন সাকিবকে।

বাংলাদেশ অধিনায়ক তার আগেই দেখা পেয়ে গেছেন দারুণ এক মাইলফলকের। টি-টোয়েন্টিতে দ্বিতীয় ক্রিকেটার হিসেবে ৬ হাজার রান ও ৪০০ উইকেটের মাইলফলক।

এশিয়া কাপে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আজ বৃহস্পতিবার বাংলাদেশের ইনিংসে ১০ম ওভারের প্রথম বলে চামিকা করুনারত্নেকে স্কুপ করে চার মেরে টি-টোয়েন্টিতে ছয় হাজার রানের মাইলফলকের দেখা পান সাকিব।

তামিম ইকবালের পর বাংলাদেশের দ্বিতীয় ব্যাটসম্যান হিসেবে টি-টোয়েন্টিতে ছয় হাজার রান সাকিবের।রানের হিসাবটা শুধুই বাংলাদেশের সীমানায় আটকে রাখে তাঁকে।

তবে অলরাউন্ড রেকর্ডে তা পেয়ে যায় বৈশ্বিক মাত্রা। এ ম্যাচে বল হাতে নেওয়ার আগেই ৪১৯ উইকেট তাঁর। টি-টোয়েন্টিতে এত দিন ৬ হাজার রান ও ৪০০ উইকেটের ‘ডাবল’ ছিল শুধুই ক্যারিবিয়ান অলরাউন্ডার ডোয়াইন ব্রাভোর।

টি-টোয়েন্টিতে ৫৪৯ ম্যাচে ৬ হাজার ৮৭১ রান ও ৬০৫ উইকেট ব্রাভোর। আন্তর্জাতিক ও ঘরোয়া মিলিয়ে আজ ৩৬৯তম ম্যাচ খেলছেন সাকিব এ সংস্করণে।

৪১৯ উইকেট নেওয়ার পাশাপাশি এই সংস্করণে ৬ হাজার ৯ রান হলো সাকিবের। এর মধ্যে আন্তর্জাতিক টি–টোয়েন্টিতে তাঁর রানসংখ্যা ২ হাজার ৪৫ এবং উইকেট ১২২টি।

এশিয়া কাপের শেষ চারে উঠতে হলে শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে আজ জিততেই হবে বাংলাদেশ দলকে। এর আগে আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রথম ম্যাচে হেরেছে বাংলাদেশ ও আফগানিস্তান দুই দলই।