টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের দল থেকে বাদ পড়ছেন বিজয়-ইমন

গতকাল পর্যন্ত ইংল্যান্ড, অস্ট্রেলিয়া, দক্ষিণ আফ্রিকা ও নেদারল্যান্ডস দল ঘোষণা করেছে। ভারত, পাকিস্তান, শ্রীলঙ্কার মতো বাংলাদেশও অপেক্ষা করছে শেষ সময়ের জন্য।

বিসিবি ঠিক করেছে ১৪ সেপ্টেম্বর ১৫ জনের স্কোয়াড দেবে। জাতীয় দল নির্বাচকরা ১৩ জন ঠিক করেও রেখেছেন। বাকি দু’জনের জন্য অপেক্ষা।

টি২০ কোচ শ্রীধরন শ্রীরাম আগামী তিন দিন ক্রিকেটারদের পরখ করার পর চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত। লিটন কুমার দাসের সঙ্গে নিয়মিত ওপেনার নাঈম শেখকে নেওয়া হবে কিনা- এ নিয়ে দ্বিধাদ্বন্দ্বে নির্বাচকরা।

তবে এশিয়া কাপে খেলা দলের দুই সদস্য- এনামুল হক বিজয় ও পারভেজ হোসেন ইমনকে বাদ দিয়েই চিন্তা করতে হচ্ছে বিশ্বকাপ দল।

অস্ট্রেলিয়ার কন্ডিশন মাথায় রেখে অলরাউন্ডারসহ পাঁচজন পেসার নেওয়া হতে পারে। সেই বিবেচনায় দলে জায়গা পেতে পারেন সৌম্য সরকারও।

বিশেষজ্ঞ স্পিনারও নিতে হবে অন্তত দু’জন। বাকি ৮ জন ব্যাটার। ভালো একটি ওপেনিং জুটি থাকলে ৮ ব্যাটারই যথেষ্ট হতো।ব্যাটিং লাইনআপ নিয়ে কিছুটা দুশ্চিন্তা থাকলেও ঝলমলে বোলিং লাইনআপ টাইগারদের।

কাকে রেখে কাকে নেবেন- এ নিয়ে মধুর সমস্যায় পড়তে হচ্ছে নির্বাচকদের। সাকিব আল হাসান ও মোসাদ্দেক হোসেন সৈকতের মতো স্পিন অলরাউন্ডার পাওয়ায় নিয়মিত স্পিনার শেখ মেহেদী,

নাসুম আহমেদ ও মেহেদী হাসান মিরাজকে জায়গা দেওয়া কঠিন হয়ে পড়েছে। তাই শ্রীরাম আজ ঢাকায় পৌঁছালে কাল বা পরশু মিটিং করে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বাংলাদেশের বিশ্বকাপ দল কেমন হবে।